May 18, 2024

ফরচুন নিউজ ২৪

সীমিত পরিমাণে কফি পানের উপকারিতা

1 min read

ঘুম থেকে উঠেই অনেকের কফি না হলে চলে না। ঘুমের আমেজ কাটাতে কফি খান অনেকে। কফি স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারী।

স্বাস্থ্য ও জীবনধারা বিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বেশির ভাগ মানুষই চা বা কফি পানের মাধ্যমে দিন শুরু করে। কফি স্বাস্থ্যের জন্যও খুব উপকারী। আসুন, জেনে নিই সীমিত পরিমাণে কফি পানের উপকারিতা সম্পর্কে।

উদ্বেগ কমে 

কফি পান করলে উদ্বেগ বা চিন্তা কমে। মানসিক চাপ কমাতে প্রতিদিন সীমিত পরিমাণে কফি পান করতে পারেন। তবে মনে রাখতে হবে, অতিরিক্ত কফি পানের ফলে স্বাস্থ্যের ওপর বিরূপ প্রভাব পড়ে।

ক্লান্তি দূর করে 

ক্লান্তি দূর করতে কফি পান করা যেতে পারে। কফি পান করলে আপনি সতেজ বোধ করবেন।

ত্বকের ক্যানসারের ঝুঁকি কমে

নিয়মিত সীমিত পরিমাণে কফি পান করলে ত্বকের ক্যানসারের ঝুঁকি হ্রাস করতে পারে।

টাইপ-ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমে 

আমেরিকান কেমিক্যাল সোসাইটির একটি গবেষণা অনুযায়ী, নিয়মিত তিন থেকে চার কাপ কফি পানের ফলে টাইপ-২ ডায়াবেটিসের ঝুঁকি ৫০ শতাংশ পর্যন্ত কমে যায়।

কফি পানের সঠিক সময়

আপনি যদি সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১১টার মধ্যে কফি পানে অভ্যস্ত হন, তাহলে এটি সঠিক সময়। এ সময়ে কফি পান করা নিরাপদ। আর যদি ১২টা থেকে ১টার মধ্যে কফি পান করেন, তবে এ সময়ে কফি পান করা আপনার পক্ষে ক্ষতিকারক হতে পারে। তাই সকালে কফি পান করাই উত্তম। অতিরিক্ত কফি পান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক।

 

About The Author