রবি. জানু ১৭, ২০২১

Fortune News 24

ফরচুন নিউজ ২৪

প্রধানমন্ত্রীর উপহারে আত্মহারা উত্তমের পরিবার

১ মিনিট পাঠের সময়

কথা দিয়ে কথা রাখলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৩১ বছর আগে চট্টগ্রামে শিবিরের হামলায় নিহত স্কুলছাত্র উত্তম বিশ্বাসের পরিবারকে সহায়তার উপহার পাঠালেন। এতে খুশিতে আত্মহারা উত্তমের পরিবার।১৯৮৯ সালে এরশাদ সরকারের আমলে স্কুলের যাওয়ার পথে বোমা হামলায় নিহত হয় সপ্তম শ্রেণির ছাত্র উত্তম বিশ্বাস। তখন তাকে দেখতে ছুটে যান বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কেউ কথা না রাখলেও ৩১ বছর পর কথা রাখলেন শেখ হাসিনা।

জেলা প্রশাসনের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক বদিউল আলমের নেতৃত্বে একটি দল শনিবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামের পাথরঘাটায় উত্তমের বাসায় পরিবারের হাতে তুলে দেন প্রধানমন্ত্রীর উপহার। আশ্বাস দেন পরিবারের সদস্যদের চাকরির।

চট্টগ্রাম ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মো. বদিউল আলম বলেন, ‘কিছু নগর অর্থ, খাবার-দাবার, পোশাক এবং উনাদের তিন সন্তান স্কুলে পড়াশোনা করেন তাদের জন্য শিক্ষাসামগ্রী প্রধানমন্ত্রী উনাদের জন্য উপহার পাঠিয়েছেন। আমরা এগুলো দিয়েছি। উনারা যে ঘরে থাকেন সে ঘরের বিস্তারিত তথ্যগুলো আমরা নিয়েছি। আমরা উনাদের ভাইবোনদের শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং বয়স অনুযায়ী সরকারি, বেসরকারি পর্যায়ে চাকরির ব্যবস্থা করে দেব।

প্রধানমন্ত্রী সহায়তা পেয়ে খুশিতে আত্মহারা উত্তমের পরিবার। উত্তমের স্মৃতি ধরে রাখার দাবি জানান তারা।

উত্তম বিশ্বাসের বোন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। মনের থেকে প্রধানমন্ত্রীর জন্য আশীর্বাদ করছি। উনি এত দিন পর আমাদের খোঁজ নিয়েছেন তার জন্য আমরা কৃতজ্ঞ।’

১৯৮৯ সালের ১০ জানুয়ারিতে বোমায় আহতে হলে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেওয়ার পর উত্তম বিশ্বাসের মৃত্যু হয়। এর প্রতিবাদে পরে কেন্দ্রীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ তখন সারাদেশে ১২ ও ১৩ জানুয়ারি হরতালের ডাক দেয়।