বৃহঃ. নভে ২৬, ২০২০

Fortune News 24

ফরচুন নিউজ ২৪

বিসিক শিল্প নগরীর অভ্যন্তরে সন্ত্রাসী হামলা ও চাঁদাবাজি : আতঙ্কিত মালিকগণ ও শ্রমিকবৃন্দ

১ মিনিট পাঠের সময়

বরিশাল বিসিক শিল্প নগরীর বিনিয়োগকারীরা আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে । প্রায় প্রতিনিয়ত সন্ত্রাসীরা শিল্প মালিকদের উপর হামলা করছে নিয়মিত তাদের কাছে চাঁদা দাবি ও চাঁদা আদায় করছে। শিল্প প্রতিঠান চালানোর জন্য কেউ চাঁদা দিতে না চাইলে তার উপর সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলা চলে। এতে দিনদিন অনিরাপদ হয়ে পড়েছে বিসিক ও এর শিল্প কারখানা। শিল্প মালিকরা এখন নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে এবং তাদের শিল্পপ্রতিষ্ঠান অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার কথা ভাবছে। বিসিক শিল্প নগরীর অভ্যন্তরে সন্ত্রাসী হামলা ও চাঁদাবাজি চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে। গত ২০/১০/২০২০ ইং তারিখে জনাব হিমাদ্রী শেখর সাহা, পিতার নাম হিমাংশু সাহা, কালাচাঁদ শাহের বাড়ী, দপ্তর খানা, বরিশাল সন্ত্রাসী হামলা, চাঁদাবাজি, অর্থ ছিনতাই এবং শারীরিক নির্যাতনের শিকার হন । হিমাদ্রী শেখর সাহা মৌমিতা বেকারী, বিসিক কাউনিয়া বরিশালের একজন শিল্প মালিক। সন্ত্রাসী মোঃ মাসুদ, পিতা – আব্দুর রহমান ওরফে রহম আলী, মিরা বাড়ীর মোড়, বিসিক ,বরিশাল, সন্ত্রাসী মোঃ রুহুল আমিন, পিতা – আব্দুর রহমান ওরফে রহম আলী, বিসিক, বরিশাল এবং সন্ত্রাসী মোঃ হৃদয়, পিতা অজ্ঞাত, বিসিক ,বরিশাল সহ  অজ্ঞাত নামা ১০/১২ জন, সন্ত্রাসী  তাহাকে দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন সময়ে চাঁদা দেওয়ার জন্য বল প্রয়োগ করে। গত ২০/১০/২০২০ ইং আনুমানিক বিকাল ১৭.৩০ ঘটিকায় শিল্প নগরীর অভ্যন্তরে অতর্কিত ভাবে তাকে লাঠি সোটা সহ হামলা করে এবং শারীরিক নির্যাতন করে মারাত্মক ভাবে আহত করে।  সন্ত্রাসীদের লাঠির আঘাতে তাহার ডান চোখের নীচে রক্ত জমাট বেঁধে কালসিটে হয়ে যায়। এক পর্যায়ে তারা জনাব হিমাদ্রী শেখর সাহা এর নিকট রক্ষিত টাকা  ও মোবাইল ফোন বল পূর্বক ছিনিয়ে নেয়। এছাড়া একই সময়ে তাহার বেকারীতে উৎপাদিত পণ্য পরিবহনের জন্য ব্যবহারিত মাহেন্দ্রা কাভার ভ্যানটি ভেঙ্গে ক্ষতিগ্রস্ত করে।

ইতোমধ্যে বিসিক থেকে বালু ভরাট করার প্রায় ৩৬ লাখ টাকার পাইপ রাতের আধারে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে যায় । পরে বিসিক শিল্প মালিকরা জানতে পারে যে মান্না, টুটুল ও অনিকের সন্ত্রাসী বাহিনী এই পাইপ নিয়ে গেছে।

সন্ত্রাসী হামলার ধারাবাহিকতায় আজ দুপুর ১২ টার দিকে একদল সন্ত্রাসী মান্নার নেতৃত্বে বিসিকের ইন্ডাস্ট্রিজ কারখানায় হামলা চালায়। তিনজন সন্ত্রাসী মোঃ রইজ আহমেদ মান্না, মোঃ হৃদয় এবং মোঃ হীরা ২৪-১০-২০২০ তারিখে বিসিক শিল্প নগরীতে চাপাতি, লাঠি, ও অস্র সহ প্রবেশ করে । এ সময় বিসিকের একজন শিল্প মালিক তাদের কারখানা পরিদর্শনের আহবান করলে তাকে অতর্কিত ভাবে কিল ঘুষি ও শারীরিক ভাবে প্রহার করে ড্রেনের পাশে ফেলে দেয় । এ হামলায় এমজে ইন্ডাস্ট্রিজ এর পরিচালক শফিউল আজম সহ কয়েকজন মালিক আহত হন। তারা বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে । এ বিষয়ে থানায় মামলা করার প্রক্রিয়া চলছে। শিল্প মন্ত্রণালয়ের চলমান উন্নয়ন কাজে বাঁধা দেওয়াই তাদের মূল লক্ষ্য। সন্ত্রাসী গণ দীর্ঘদিন ধরে শিল্প নগরীতে চাঁদা দাবি করে আসছিলো ।

এই সন্ত্রাসীরা চাঁদা দাবি করে বিসিকের নানামুখী নানামুখী সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড প্রতিনিয়ত বাধার সৃষ্টি করছে। এরমধ্যে সন্ত্রাসীদের বাধার কারণে কিছু কিছু সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড কাজ দুই বছর ধরে আটকে আছে।

এ বিষয়ে বিসিক মালিক সমিতির সভাপতির সাথে যোগাযোগ করলে তিনি মুঠোফোনে জানান, “আমি বর্তমানে ঢাকা আছি, তবে বিষয়টি আমি জানি । ঢাকা থেকে এসে আমি বিষয়টি খতিয়ে দেখবো ।“ বিসিক শিল্প নগরীর অভ্যন্তরে সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর জোরালো পদক্ষেপ কামনা করছি।