মঙ্গল. অক্টো ২৭, ২০২০

Fortune News 24

ফরচুন নিউজ ২৪

বাংলাদেশ-ভারত ফ্লাইট চালু ২৮ অক্টোবর

১ মিনিট পাঠের সময়

বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে ফ্লাইট চালু হতে যাচ্ছে ২৮ অক্টোবর থেকে। এ ক্ষেত্রে দুই দেশের যাত্রীদের যাতায়াতে কভিড নেগেটিভ টেস্টের সনদ থাকা বাধ্যতামূলক। বাংলাদেশি যাত্রীদের সরকারনির্ধারিত করোনা শনাক্ত কেন্দ্র থেকে এ টেস্ট করাতে হবে। আর ভারত থেকে আসা যাত্রীদের ঢাকায় ভালোভাবে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হবে।

বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ারভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান গতকাল গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, বিশেষ ব্যবস্থায় বাংলাদেশ থেকে ভারতের কলকাতা, দিল্লি ও চেন্নাইয়ে ফ্লাইট চলাচল করবে। প্রতি সপ্তাহে ২৮টি ফ্লাইট বাংলাদেশ থেকে যাবে। কলকাতা ও দিল্লিতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস, চেন্নাই ও কলকাতায় ইউএস বাংলা এবং নভোএয়ার শুধু কলকাতায় ফ্লাইট পরিচালনা করবে। অন্যদিকে ভারত থেকেও ২৮টি ফ্লাইট ঢাকায় আসবে।

ভারতের এয়ার ইন্ডিয়া, ইনডিগো, স্পাইসজেট, ভিস্তারা ও গোএয়ার পাঁচটি বিমান সংস্থার ফ্লাইট চলাচল করবে। ২৮ অক্টোবর থেকে আগামী ২৮ জানুয়ারি পর্যন্ত তিন মাসের জন্য এয়ার বাবল ব্যবস্থায় বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে ফ্লাইট চলাচল করবে। এয়ার বাবল ব্যবস্থায় ফ্লাইটগুলো কেবল বাংলাদেশ ও ভারতের এক গন্তব্য থেকে অন্য গন্তব্যে যাবে। প্রতি ফ্লাইটে ছোট উড়োজাহাজের ক্ষেত্রে শেষের দুটি সারি ফাঁকা রাখতে হবে। ৩৫০ বা এর বেশি আসনের বড় উড়োজাহাজ হলে সর্বোচ্চ ২৬০ জন যাত্রী নেওয়া যাবে। করোনা পূর্ববর্তী সময়ের ভাড়াই নেওয়া হবে। তাই টিকিটের মূল্য বাড়বে না।

করোনা মহামারী ঠেকাতে গত ১২ মার্চ থেকে বিদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেয় ভারত। তবে সম্প্রতি পর্যটন ভিসা ছাড়া নয়টি ক্যাটাগরিতে ভিসা ব্যবস্থা চালু করেছে দেশটি।