সোম. অক্টো ১৯, ২০২০

Fortune News 24

ফরচুন নিউজ ২৪

বরিশালে দুর্গাপূঁজা উপলক্ষে পূঁজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে মেট্রোপলিটন পুলিশের সমন্বয় সভা

১ মিনিট পাঠের সময়

শারদীয় দুর্গাপূঁজা উপলক্ষ্যে আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পূঁজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার বেলা ১১টায় বরিশাল জেলা পুলিশ লাইনের ড্রিল সেডে মেট্রোপলিটন পুলিশ এর আয়োজনে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান। বিএমপি’র উপ-কমিশনার (সদর) আবু রায়হান মুহাম্মদ সালেহ্’র সভাপতিত্বে সমন্বয় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার প্রলয় চিসিম, উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিন) মো. মোকতার হোসেন, উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার, উপ-পুলিশ কমিশনার (নগর বিশেষ শাখা) জাহাঙ্গীর হোসেন মল্লিক, উপ-পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) মো. মনজুর রহমান, উপ-পুলিশ কমিশনার সাপ্লাই এন্ড লজিস্টিকস খান মুহাম্মদ আবু নাসের, জেলা পূঁজা উদযাপন কমিটির সভাপতি রাখাল চন্দ্র দে ও সাধারন সম্পাদক মানিক মুখার্জী, মহানগর পূঁজা উদযাপন কমিটির সভাপতি নারায়ন চন্দ্র দে নারু ও সাধারন সস্পাদক সুরজিত দত্ত সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।
সভায় জানানো হয়, এবার বরিশাল জেলা ও মহানগরে ৬১৭টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গাপূঁজা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে মহানগরে ৪২টি এবং জেলার ১০ উপজেলার ৫৭৫টি মন্ডপে অনুষ্ঠিত হবে শারদীয় দুর্গাপূঁজা। সভায় বলা হয়, এবার পূঁজা মন্ডপগুলোতে স্থায়ীভাবে পুলিশ মোতায়েন থাকবে না। গোয়েন্দা পুলিশ প্রতিটি মন্ডপ নজরদারী করবে। স্বেচ্ছাসেবক দিয়ে প্রতিটি মন্ডপে শান্তি শৃঙ্খলা ও শারীরিক দূরত্ব রক্ষা এবং মন্ডপে প্রবেশের ক্ষেত্রে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করার নির্দেশনা দেয়া হয়।
পূঁজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দ পুলিশ কমিশনারকে জানান, এবার করোনার কারনে কেন্দ্রিয় পূঁজা উদযাপন কমিটি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কোন মন্ডপে তোরন নির্মান করা হবে না। এছাড়া আঁতশবাজী, মেলা, আরতী প্রতিযোগীতাও হবেনা। আগামী ২৭ অক্টোবর সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে মহানগরীর আওতাধীন সব মন্ডপের প্রতীমা বিসর্জন দেয়ার জন্য পূঁজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দকে নির্দেশনা দেন পুলিশ কমিশনার।