রবি. অক্টো ২৫, ২০২০

Fortune News 24

ফরচুন নিউজ ২৪

সময়মতো প্রণোদনা প্যাকেজ অর্থনীতিকে ঘুরে দাঁড়াতে সাহায্য করেছে: প্রধানমন্ত্রী

১ মিনিট পাঠের সময়

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, করোনা মহামারিতে সময়মতো সরকারের আর্থিক অনুদানের ফলেই, কৃষি, বাণিজ্যসহ পুরো অর্থনীতি আবারও গতিশীল হচ্ছে।

সূচনা বক্তব্যে একনেক সভাপতি বলেন, সময়মতো প্রণোদনা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল বলেই অর্থনীতি এখন ঘুরে দাঁড়াচ্ছে।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১০টায় নতুন অর্থ-বছরের ১১তম এই একনেক সভা শুরু হয় শেরে বাংলা নগরে। গণভবন থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে এতে যোগ দিয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এনইসি সম্মেলন কক্ষ থেকে যুক্ত ছিলেন একনেক এর অন্যান্য সদস্যরা। জরুরি ভিত্তিতে রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় মাল্টি সেক্টর প্রথম সংশোধিত প্রকল্পসহ একনেকে অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হয় ৪টি প্রকল্প।

সরকার প্রধান বলেন, ‘আমরা ঠিক সময়মতো সঠিক পদক্ষেপ নিয়েছি… আমরা কত টাকা আছে বা কী আছে তা নিয়ে ভাবিনি, শুধু আমাদের অর্থনীতিকে এগিয়ে নেয়ার কথা চিন্তা করেছি।’

শেখ হাসিনা বলেন, দেশের অর্থনীতির চাকা চলমান রাখতে মহামারির সময়ে কৃষি, এসএমই, ভারী শিল্প ও তৈরি পোশাক এবং বিভিন্ন শিল্প খাতের মতো দরিদ্র, দিনমজুর ও গরিব মানুষদের জন্য বিভিন্ন প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা যদি অর্থনীতির চাকার চলমান রাখতে চাই, তবে এ খাত এবং গোষ্ঠীগুলোকে টাকা সরবরাহ করতে হবে… আমাদের মানুষের হাতে টাকা তুলে দিতে হবে।’

এখন পর্যন্ত সরকার ১৩.২৫ বিলিয়ন ডলার মূল্যের ২১টি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। যা দেশের মোট জিডিপির ৪.০৩ শতাংশের সমান। বিভিন্ন গোষ্ঠীর ও খাতকে দেয়া নগদ টাকা সামগ্রিকভাবে দেশের অর্থনীতিকে ভালোভাব ঘুরে দাঁড়াতে সহায়তা করেছে।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, জনগণকে যাতে কোনোভাবেই খাদ্য ঘাটতিতে পড়তে না হয় সে জন্য সরকার খাদ্য পণ্যের উৎপাদন বাড়াতে কৃষিক্ষেত্রের উন্নয়ন অব্যাহত রাখাকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে। ‘এবং আমরা উৎপাদন ধরে রাখতে পেরেছি।’

প্রণোদনা প্যাকেজ সম্পর্কে বলতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার ব্যবসায়ীদের সুবিধা দিয়েছে এবং যেগুলো পাওয়ার পর থেকে তারা তাদের নিজের কার্যক্রমে শুরু করতে পেরেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘প্রণোদনা প্যাকেজ দেয়ার ক্ষেত্রে আমরা কোনো খাতকে পেছনে রাখিনি…আমরা সব ধরনের ব্যবসায়ীকে তা দিতে পেরেছি, আমরা তাদের সময়মতো নগদ টাকা ও প্রণোদনা দিয়েছি। যা তাদের ব্যবসা চালিয়ে নিতে সহায়ক হয়েছে। পুনরায় ব্যবসায়িক কার্যক্রম শুরু হওয়ায় দিনমজুরেরাও তাদের কাজ ফিরে পেতে শুরু করেছেন, উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, সরকার কৃষিক্ষেত্রের জন্য সরাসরি প্রণোদনা দিয়েছে এবং পর্যায়ক্রমে এসএমই, ভারী শিল্প, তৈরি পোশাক এবং অন্যান্য শিল্পকে দিয়েছে। ফলে দেশের অর্থনীতি আবার গতি ফিরে পেয়েছে, বলেন প্রধানমন্ত্রী।