ফরচুন নিউজ ২৪

রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় বাড়লো ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত

1 min read

আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় ৩০ নভেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। সে হিসেবে করদাতারা আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় এক মাস পেল।
সোমবার (৩০ নভেম্বর) জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম এসব তথ্য জানিয়েছেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলাপ করে এনবিআরের ক্ষমতা প্রয়োগ করে আমরা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ব্যক্তি পর্যায়ের করদাতাদের সুবিধার্থে আয়কর রিটার্ন দাখিল করার সময় এক মাস বৃদ্ধি করা হল।’

তিনি বলেন, দেশে ৫০ লাখ ৭২ হাজার নাগরিকের কর শনাক্তকারী নম্বর (টিআইএন) রয়েছে। সোমবার দুপুর পর্যন্ত তাদের মধ্যে ১৫ লাখ করদাতা রিটার্ন দাখিল করেছেন।
‘এখনও কর অঞ্চলগুলোতে ব্যাপক ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। পাশাপাশি কোভিড পরিস্থিতির কথা বিবেচনায় রেখে আমরা এক মাস বৃদ্ধি করলাম’।

এর আগে রোববার সংস্থাটির চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম জানিয়েছিলেন, মহামারি করোনাভাইরাস এসেছে প্রায় এক বছর হতে চললো। এ সময় আমাদের সব কর্মকাণ্ডই চলেছে। করদাতাদেরও সব সেবা দেওয়া হয়েছে। তাই আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার সময় আর বাড়ানো হবে না। যারা আয়কর রিটার্ন জমা দেবেন তাদের নির্ধারিত ৩০ নভেম্বরের মধ্যেই রিটার্ন জমা দিতে হবে। তবে আবেদন সাপেক্ষে করদাতারা চাইলেই সময় বাড়াতে পারবেন।

এর একদিন পরই আজ সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করলো এনবিআর। এছাড়া নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিটার্ন দিতে না পারলে যৌক্তিক কারণ দেখিয়ে দুই থেকে চার মাস পর্যন্ত সময় বাড়িয়ে নেওয়া যায়। এজন্য নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হয়। তখন একজন কর কর্মকর্তা আয়কর অধ্যাদেশ অনুযায়ী জরিমানা, করের ওপর ৫০ শতাংশ অতিরিক্ত সরল সুদ কিংবা করের টাকার ওপর মাসিক ২ শতাংশ হারে বিলম্ব সুদ আরোপ করতে পারবেন। আবেদন করে সময় পেলেও বিলম্ব সুদ দিতে হবে, জরিমানা দিতে হবে না।