সোম. সেপ্টে ২৭, ২০২১

Fortune News 24

ফরচুন নিউজ ২৪

বাংলাদেশে গাড়ি বানাবে হুন্দাই

১ মিনিট পাঠের সময়

বাংলাদেশে গাড়ি তৈরির সম্ভাবনাময় বাজারে যোগ হচ্ছে কোরিয়ার বিখ্যাত অটোমোবাইল ব্র্যান্ড ‘হুন্দাই’য়ের নাম। গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে কারখানা স্থাপনে ছয় একর জমি নিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। সেখানে আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে কারখানা নির্মাণের কাজ শুরু হবে। নির্মাণকাজ শেষ করে এ বছরের মাঝামাঝিতে প্রথম ধাপে গাড়ি সংযোজন এবং পরবর্তী সময়ে উৎপাদনে যাওয়ার পরিকল্পনা আছে। এ নিয়ে আজ রাজধানীর একটি হোটেলে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর হবে।

এর আগে জাপানের মিত্সুবিশি করপোরেশনের কারিগরি সহায়তায় রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজ সরকারের চাহিদা অনুযায়ী গাড়ি উৎপাদন শুরু করে। ২০১৫ সালে দেশে প্রথমবারের মতো সেডান কার বা ব্যক্তিগত গাড়ি সংযোজনের ঘোষণা দেয় চট্টগ্রামের পিএইচপি গ্রুপ। দুই বছর পর তারা গাড়ি বাজারজাত শুরু করে। এবার ‘হুন্দাই’ ব্র্যান্ডের ব্যক্তিগত গাড়ি তৈরি করতে যাচ্ছে ফেয়ার টেকনোলজি লিমিটেড। তারাই দেশে প্রথমবারের মতো হাইটেক পার্কের মধ্যে গাড়ি তৈরি করতে যাচ্ছে। হাইটেক পার্কে কারখানা হওয়ায় বেশ কিছু কর ছাড় পাবে প্রতিষ্ঠানটি। ফলে তুলনামূলক কম মূল্যে ব্যক্তিগত ‘হুন্দাই’ গাড়ি পেতে পারেন ক্রেতারা।

জানা গেছে, বাংলাদেশের অটোমোবাইল গ্রাহকদের সম্পূর্ণ নতুন গাড়ি এবং মানসম্পন্ন বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে হুন্দাই মোটর করপোরেশনের অনুমোদিত ডিস্ট্রিবিউটর হিসেবে গত জুলাইয়ে নিযুক্ত হয় ফেয়ার গ্রুপের মোটরগাড়িভিত্তিক অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ফেয়ার টেকনোলজি লিমিটেড। তখন চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে ফেয়ার গ্রুপের চেয়ারম্যান রুহুল আলম আল মাহবুব বলেন, ‘মোটরগাড়ি শিল্পে হুন্দাইয়ের সঙ্গে আমাদের নতুন যাত্রা ঘোষণা করতে পেরে আমরা গর্বিত। অটোমোবাইল শিল্পে প্রযুক্তি হস্তান্তর, মানবসম্পদ বিকাশ ও নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করাই আমাদের লক্ষ্য। শিগগিরই আমরা হুন্দাইয়ের প্রত্যক্ষ সহযোগিতা এবং সরকারের প্রয়োজনীয় নীতি সহায়তায় উৎপাদনভিত্তিক কারখানা স্থাপন করব।’

জানতে চাইলে বাংলাদেশ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম গতকাল সোমবার কালের কণ্ঠকে বলেন, “কালিয়াকৈরে ৩৫৫ একর জমিতে স্থাপিত ‘বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটি’ দেশের প্রথম ও বৃহত্তম হাইটেক পার্ক; যেখানে বর্তমানে ৪২টি কম্পানিকে জায়গা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এখানে হুন্দাইয়ের স্থানীয় পরিবেশক ফেয়ার টেকনোলজি লিমিটেড গাড়ির কারখানা স্থাপনে জায়গা নিচ্ছে। আজ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে এই বিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষর হবে। তারা আমাদের বলেছে, তারা কারখানা স্থাপনের জন্য প্রস্তুত। আগামী সপ্তাহখানেকের মধ্যে তারা কাজ শুরু করবে। এ জন্য লে-আউট, ডিজাইনও তারা পাঠিয়ে দিয়েছে।”

সূত্র জানায়, ফেয়ার গ্রুপ বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে আগেই তিন একর জমি নিয়েছিল। সেখানে ল্যাপটপসহ ডিজিটাল ডিভাইস উৎপাদনের পরিকল্পনা আছে প্রতিষ্ঠানটির। এখন মোটরগাড়ি কারখানা স্থাপনের জন্য পৃথক ছয় একর জমি নিচ্ছে তারা। তারা এখন একতলা কারখানা করবে। এটি নির্মাণ শেষে তারা গাড়ি সংযোজন শুরু করবে।

আজ হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহেমদ পলক, দক্ষিণ কোরিয়ার (রিপাবলিক অব কোরিয়া) রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং কুয়েনসহ ফেয়ার গ্রুপ ও হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন।

হাইটেক পার্ক সূত্র জানায়, বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে এরই মধ্যে ১৪টি কম্পানি উৎপাদন শুরু করেছে। কম্পানিগুলো এই পার্কে মোবাইল ফোন সংযোজন ও উৎপাদন, অপটিক্যাল কেবল, হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার, ডাটা-সেন্টারসহ উচ্চ প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে। দেশের বিভিন্ন পার্কে এ পর্যন্ত ৩২৭ কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে এবং প্রায় ১৩ হাজার জনের কর্মসংস্থান হয়েছে।

ফেয়ার গ্রুপ দেশে স্যামসাং স্মার্টফোন এবং কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকস পণ্য উৎপাদন করছে। এবার হুন্দাইয়ের সঙ্গে গাড়ির ব্যবসায়ও আটঘাট বেঁধে নামছে প্রতিষ্ঠানটি। বিশ্বের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় কোরিয়ান অটোমোবাইল ব্র্যান্ড হুন্দাই তার অত্যাধুনিক ডিজাইন, উন্নত প্রযুক্তি, দীর্ঘমেয়াদি ওয়ারেন্টি, অভিজাত সুযোগ-সুবিধার জন্য জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। ফেয়ার টেকনোলজি হুন্দাইয়ের সহযোগিতায় বাংলাদেশি অটোমোবাইল গ্রাহকদের ‘মডার্ন প্রিমিয়াম’ গাড়ির অভিজ্ঞতা দেবে।

হাইটেক পার্কে বিনিয়োগ করলে শিল্পপ্রতিষ্ঠানকে একগুচ্ছ কর ছাড় দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। মূলধনী যন্ত্রপাতি, নির্মাণসামগ্রী থেকে শুরু করে গাড়ি আমদানি করলেও শুল্কমুক্ত সুবিধা পাওয়া যাবে। অবশ্য এ জন্য কমপক্ষে এক কোটি ডলার বা প্রায় ৮০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করতে হবে।