শনি. অক্টো ২৩, ২০২১

Fortune News 24

ফরচুন নিউজ ২৪

প্রাথমিকের উপবৃত্তির টাকা পৌঁছে যাবে ‘নগদে’

১ মিনিট পাঠের সময়

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর উপবৃত্তির টাকা এখন থেকে ডাক বিভাগের ডিজিটাল লেনদেন সেবা নগদের মাধ্যমে বিতরণ করা হবে। রোববার (১৩ ডিসেম্বর) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে উপবৃত্তি বিতরণের লক্ষ্যে প্রাথমিক অধিদপ্তর ও নগদের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেনের উপস্থিতিতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ও নগদের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করেন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ এম মনসুরুল আলম এবং ডাক বিভাগের মহাপরিচালক মো. সিরাজ উদ্দিন। এ সময় গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব গোলাম মো. হাসিবুল আলমসহ দুই মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, শিক্ষা সভ্যতার বাহন। এখন সময় ডিজিটাল দক্ষতাসম্পন্ন মানবসম্পদ তৈরির। প্রাথমিক শিক্ষা এর মূলভিত্তি। সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠার লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়নে যুদ্ধের ধ্বংসস্তুপের ওপর দাঁড়িয়েও বঙ্গবন্ধু প্রাথমিক শিক্ষা জাতীয়করণ করেছিলেন। প্রযুক্তি দুনিয়ার সঙ্গে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রাথমিক স্তর থেকে শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তর অপরিহার্য হয়ে পড়েছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, ‘উপবৃত্তি প্রাথমিক শিক্ষা বিস্তারে অভাবনীয় ভূমিকা পালন করছে। পাশাপাশি বৃত্তির এই টাকা মায়েদের হাতে পৌঁছে দিয়ে নারীর ক্ষমতায়নে অবদান রাখছে। শিক্ষার্থীদের ডিজিটাল দক্ষতাসম্পন্ন মানবসম্পদ হিসেবে তৈরি করতে হলে প্রাথমিক শিক্ষা থেকে তাদের তৈরি করতে হবে।’

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের সঙ্গে নগদের চুক্তি স্বাক্ষর ১৯৯৯ সাল থেকে প্রাথমিক শিক্ষাকে ডিজিটাল রূপান্তরে মন্ত্রী তার দীর্ঘ অভিজ্ঞতা বর্ণনা করে বলেন, ‘প্রাথমিকে তথ্য-প্রযুক্তি শিক্ষা জ্ঞানভিত্তিক ডিজিটাল সাম্য সমাজ প্রতিষ্ঠার হাতিয়ার হিসেবে কাজ করবে।’

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘উপবৃত্তি দেওয়ায় প্রাথমিক স্তরে ঝরে পড়া রোধ হয়েছে।’ উপবৃত্তির টাকা সমৃদ্ধ জাতিগঠনের জন্য একটি যুগান্তকারী উদ্যোগ বলে তিনি উল্লেখ করেন।

পরে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ও নগদের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এএম মনসুরুল আলম এবং ডাক বিভাগের মহাপরিচালক মো. সিরাজ উদ্দিন চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।